শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩  

শিরোনাম

চট্টগ্রামের-পটিয়ায় মসজিদ ভেঙে মার্কেট করার চেষ্টা হুইপ ও তার পুত্রের

দৈনিক অনুসন্ধান    |    ১০:০২ পিএম, ২০২১-০৪-১৯

চট্টগ্রামের-পটিয়ায় মসজিদ ভেঙে মার্কেট করার চেষ্টা হুইপ ও তার পুত্রের

মোঃ নেয়ামত উল্লাহ রিয়াদ, বিশেষ প্রতিনিধিঃ

 চট্টগ্রামর পটিয়া আসনের  সংসদের হুইপ শামসুল হক চৌধুরী ও তার ছেলে শারুন চৌধুরীর বিরুদ্ধে পটিয়া থানা জামে মসজিদের জায়গায় বহুতল মার্কেট নির্মাণের অভিযোগ উঠেছে। গত দুই বছর আগে হুইপ ও তার পুত্র প্রভাব খাটিয়ে শত বছরের ঐতিহ্যবাহী মসজিদটি ভেঙে ফেলেন। এই নিয়ে তখন ব্যাপক ক্ষোভ আলোচনার সৃষ্টি হয়। এখন হুইপ ও তার পুত্র ভেঙে ফেলা মসজিদের জায়গায় মার্কেট নির্মাণ করার জন্য উঠেপড়ে লেগেছেন বলে অভিযোগ করেছেন স্থানীয়দের।

  তারা বলছেন, এলাকার মুসল্লিরা পটিয়া থানার পাশে এস এ রাহাত আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের একটি কক্ষে নামাজ পড়ছেন।

জানা যায়, শত বছরের ঐতিহ্যবাহী মসজিদটি ভেঙে ফেলার পর সেখানে মসজিদ কাম বহুতল মার্কেট বানাতে চেয়েছিলেন হুইপ ও তার পুত্র। তাদের এই অপচেষ্টা এখনো অব্যাহত রয়েছে। মসজিদ ভাঙার সময় সাধারণ মানুষ ভয়ে প্রতিবাদ করতে পারেননি। থানা পুলিশ কর্মকর্তারা বাধা দিলে শাস্তি হিসেবে তাদের হতে হয়েছে বদলি। প্রতিবাদ করায় কয়েকজন পুলিশ কর্মকর্তাকে পড়তে হয়েছে হুইপপুত্রের  রোষানলে। এই নিয়ে পুলিশ প্রশাসনে রয়েছে অসন্তোষ।
 নাম না বলতে ইচ্ছুক এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, হুইপ ও তার পুত্র মন যা চায় তাই করেন এখানে প্রশাসন হস্তক্ষেপ করলে বদলি বা সাসপেন্ড হতে হয়। এক কথায় ওনারা বাপ বেটা মানিক জোড়া ভাই। 
পুলিশের  কর্মকর্তা বলেন, ‘পটিয়া থানা জামে মসজিদের জমি দখল করে তাতে ১০ তলা অভিজাত মার্কেট নির্মাণের চেষ্টা করছেন স্থানীয় এমপি শামসুল হক চৌধুরী ও তার পুত্র নাজমুল হক চৌধুরী শারুন। এরই মধ্যে তাদের অনুসারী এক নেতাকে দিয়ে কথিত মসজিদ পরিচালনা কমিটি গঠন করা হয়েছে।

পরিবর্তন করে দেওয়া হয়েছে মসজিদের নাম। তারা তাদের নিয়ন্ত্রণাধীন কথিত মসজিদ কমিটির মাধ্যমে  প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে ডেভেলপমেন্ট কোম্পানির সাথে চুক্তি ও করেছেন।  এরই মধ্যে ১০ তলা মার্কেট করে তাতে ৪০০টি দোকান তৈরির আনুষ্ঠানিকতা শেষ করেছে। একেকটি দোকান বরাদ্দ  দেওয়ার জন্য ৩০ থেকে ৪০ লাখ টাকা নেওয়া হচ্ছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে পটিয়ার এক আওয়ামী লীগের নেতা বলেন, ‘মসজিদ  ভেঙে মার্কেট নির্মাণের আনুষ্ঠানিকতা শেষ করেছে। তাদের এমন অপকর্মে আমরা বিব্রত এবং মর্মাহত।

অনুসন্ধানে জানা যায়, ১৮৯০ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় ‘পটিয়া থানা জামে মসজিদ’। মসজিদটি পটিয়া সার্কেলের এএসপি কিংবা থানার অফিসার ইনচার্জ সভাপতি এবং মুসলিদের পক্ষ থেকে একজন সেক্রেটারি নির্বাচিত হয়ে মসজিদ পরিচালিত হয়ে আসছিল। ১৯৯৪ সালে পটিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ ও এ আহমদের যৌথ স্বাক্ষরে জনতা ব্যাংকের পটিয়া শাখায় ‘থানা মসজিদের’ নামে একটি যৌথ হিসাবও  খোলা হয়। সরকারি বিভিন্ন দলিলেও ‘পটিয়া থানা জামে মসজিদ’ হিসেবে উল্লেখ রয়েছে। গত এক দশকে পটিয়ার প্রাণকেন্দ্রে ভূমির দাম বেড়ে যায় কয়েকগুণ। ফলে ‘পটিয়া থানা জামে মসজিদ’র জায়গার ওপর দৃষ্টি পড়ে এমপি শামসুল হক ও তার পুত্রের। ২০১৩ সালে এমপি অনুসারী এবং তৎকালীন পৌর মেয়র হারুনুর রশিদকে সভাপতি করে ৭ সদস্য বিশিষ্ট কথিত মসজিদ পরিচালনা কমিটি গঠন করেন। মসজিদের ওই জায়গায় ১০ তলা বহুতল মার্কেট নির্মাণের উদ্যোগ নেন হুইপ ও তাদের অনুসারীরা। তারা ‘নুসরাত ডেভেলপমেন্ট কোম্পানি লিমিটেডের সঙ্গে ভবন নির্মাণে যুক্তি করে।
২০১৮ সালে পটিয়া থানা জামে মসজিদের নাম পাল্টে ‘পটিয়া থানা ছদু তালুকদার জামে মসজিদ কমপ্লেক্স’ নামকরণ করে হুইপ পরিবার ও তার অনুসারীরা। অবৈধ ভাবে গঠিত কথিত মসজিদ কমিটি বাতিল এবং ‘নুসরাত ডেভেলপমেন্ট কোম্পানি লিমিটেডের সঙ্গে করা চুক্তি বাতিলের জন্য আদালতে মামলাও করা হয়। ২০১৯ সালে পটিয়ার সিনিয়র সহকারী জজ ১ম আদালত এক রায়ে ‘পটিয়া থানা ছদু তালুকদার জামে মসজিদ’ ও ‘নুসরাত ডেভেলপমেন্ট কোম্পানি লিমিটেডের সঙ্গে করা চুক্তি অবৈধ ঘোষণা করেন। কিন্তু রায়ের তোয়াক্কা না করে হুইপ শামসুল হক  চৌধুরী, তার পুত্র নাজমুল হক চৌধুরী শারুন এখন পর্যন্ত ১০ তলা মার্কেট করার পাঁয়তারা করছেন।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে পটিয়া থানার এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, হুইপ শামসুল হকের অনুসারী হারুনুর রশীদের বাড়ি পটিয়া থানা মসজিদ থেকে কমপক্ষে ৪ কিলোমিটার দূরে। তিনি কোনো সময়ই পটিয়া থানা মসজিদ কমিটির দায়িত্বে ছিলেন না। মূলত পটিয়া থানা জামে মসজিদের ভূমি আত্মসাৎ করতেই হঠাৎ করে তাকে সভাপতি করে কথিত মসজিদ কমিটি গঠন করা হয়েছে। কথিত এ কমিটির নেপথ্যে রয়েছে হুইপ শামসুল হক ও তার পুত্র শামসুল হক চৌধুরী, তার পুত্র নাজমুল হক  চৌধুরী শারুনের দেড়শ কোটি টাকার বাণিজ্য।
এভাবে পটিয়ার অসংখ্য মানুষ হুইপ ও তার পুত্রের কর্মকান্ডে বিব্রত।

রিলেটেড নিউজ

হাট ও বাজার (স্থাপন ও ব্যবস্থাপনা) আইন, ২০২৩ বিল সংসদে উত্থাপন

হাট ও বাজার (স্থাপন ও ব্যবস্থাপনা) আইন, ২০২৩ বিল সংসদে উত্থাপন

অনুসন্ধান অনলাইন ডেস্ক : জাতীয় সংসদে আজ ‘হাট ও বাজার (স্থাপন ও ব্যবস্থাপনা) আইন, ২০২৩’ বিল উত্থাপন করা হয়েছে। হাট ও বাজার (...বিস্তারিত


মোল্লাহাটে একইদিনে বাইক দুর্ঘটনায় দু'ভাই ও বিষযুক্ত চাল ভাজা খেয়ে দু'বোনের মধ্যে একজনের মৃত্যু

মোল্লাহাটে একইদিনে বাইক দুর্ঘটনায় দু'ভাই ও বিষযুক্ত চাল ভাজা খেয়ে দু'বোনের মধ্যে একজনের মৃত্যু

দৈনিক অনুসন্ধান :   কামরুজ্জামান শিমুল বাগেরহাট জেলা প্রতিনিধিঃ  বিয়ে বাড়ি গোপালগঞ্জ থেকে মোটরসাইকেল যোগে খু...বিস্তারিত


বাংলাদেশ-মায়ানমার সীমান্তে দুই সীমানা পিলার ছাড়া সব পয়েন্ট ছিল শান্ত

বাংলাদেশ-মায়ানমার সীমান্তে দুই সীমানা পিলার ছাড়া সব পয়েন্ট ছিল শান্ত

দৈনিক অনুসন্ধান : মু. মুবিনুল হক মুবিন , নাইক্ষংছড়ি। নাইক্ষ‍্যংছড়ি ঘুমধুমের তমব্রু এলাকার ৩৪, ৩৫ দুই সীমানা পিলার ছ...বিস্তারিত


শিবগঞ্জে র‍্যাবের অভিযানে এনজিও'র পরিচালকসহ আটক -৫

শিবগঞ্জে র‍্যাবের অভিযানে এনজিও'র পরিচালকসহ আটক -৫

দৈনিক অনুসন্ধান : ফয়সাল আজম অপু, বিশেষ প্রতিনিধিঃ চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে র‌্যাবের অভিযানে দেশ বন্ধু নামক পল্ল...বিস্তারিত


যমুনা টিভির সাংবাদিকদের উপর হামলার প্রতিবাদে

যমুনা টিভির সাংবাদিকদের উপর হামলার প্রতিবাদে

দৈনিক অনুসন্ধান : কাজী দেলোয়ার হোসেন সাইদ, বিশেষ প্রতিনিধিঃ গত বুধবার চট্টগ্রাম আদালত প্রাঙ্গনে সংবাদ সংগ্রহ করতে...বিস্তারিত


শ্বশুর বাড়িতে জবাই করে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ

শ্বশুর বাড়িতে জবাই করে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ

দৈনিক অনুসন্ধান : সন্দ্বীপে স্ত্রীকে জবাই করে হত্যার অভিযোগ ওঠেছে।ঘটনাটি ঘটে স্থানীয় রহমতপুর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড...বিস্তারিত



সর্বপঠিত খবর

বিয়ে করে ৩ মাস সংসার করে পালিয়ে যান সন্দ্বীপের শিপন

বিয়ে করে ৩ মাস সংসার করে পালিয়ে যান সন্দ্বীপের শিপন

নিজস্ব প্রতিবেদক : প্রেম  করে পালিয়ে বিয়ে করেন মোহাম্মদ শিপন ও রিমা সরকার। বিয়ের ৩ মাসের মাথায় স্ত্রী রিমা সরকার কে ...বিস্তারিত


সন্দ্বীপে পুলিশ কর্তৃক অন্তঃস্ত্ত্বা নারী নির্যাতিত, গর্ভের সন্তান মৃত!

সন্দ্বীপে পুলিশ কর্তৃক অন্তঃস্ত্ত্বা নারী নির্যাতিত, গর্ভের সন্তান মৃত!

নিজস্ব প্রতিবেদক : কাউছার মাহমুদ দিদারঃ  চট্টগ্রামের সন্দ্বীপে  সিভিল পোশাকে আসামী ধরতে গিয়ে মধ্যযুগীয় কায়দায় ...বিস্তারিত



সর্বশেষ খবর